আগুনে পুড়ল রাজধানীর একমাত্র রোহিঙ্গা শিবির

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ আগুনের কবলে পুড়ে ছাই হয়ে গেল ভারতের রাজধানী দিল্লীর রোহিঙ্গা শিবির। যার জেরে গৃহহীন হয়ে পড়েছে প্রায় আড়াইশো রোহিংগা শরণার্থী।

রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির কালিন্দী কুঞ্জ মেট্রো স্টেশনের কাছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের ১২টি ইঞ্জিন। দমকলের তৎপরতার কারণে আগুন খুব বেশি ছড়িয়ে পড়েনি। তবে, সম্পূর্ণ শিবিরটি পুড়ে গিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছ, রবিবারের ব্যস্ত সমতে জৈতপুর এলাকায় আগুন লাগে। বৈদ্যুতিক তারের শর্ট সার্কিট থেকেই ওই আগুন লেগেছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে মনে করা হচ্ছে। শিবিরের বাসিন্দাদের অন্যত্র সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হতাহতের কোনও ঘটনা ঘটেনি।

দুই শতাধিক বেশি মানুষের বসবাসস্থলে আগুন লাগার কারণে খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। একই সঙ্গে সৃষ্টি হয় চরম বিশৃঙ্খলা। যদিও দুর্গতদের পাশে দাঁড়ায় বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দারা। দুর্গত এক রোহিঙ্গার কথায়, “আগুনের কবলে আমার সব পুড়ে গিয়েছে। কিছুই আর অবশিষ্ট নেই।” পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দারা অনেক সাহায্য করছে বলেও জানিয়েছে তিনি।

যে শিবিরটিতে আগুন লেগেছে সরকারি হিসেব অনুসারে সেখানে ৪৪টি ছোট ছোট ঝুপড়ি ছিল। মট ২২৮ জন সেখানে বসবাস করতেন। বাসিন্দাদের সকলেই রোহিঙ্গা। আপাতত তাদের জন্য অস্থায়ী শিবিরের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে এবং মশারি দেওয়া হয়েছে। যে এলাকায় তাঁদের শিবির ছিলে সেখানেই ফে আবাসস্থল তৈরি করে দেওয়া হবে।

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending