আজ মুখোমুখি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ আজ মুখোমুখি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। ফুটবলে ব্রাজিল–আর্জেন্টিনার লড়াই মানেই এক মহারণ। চরম উত্তেজনা আর ফুটবল–ভক্তদের দুই ভাগে ভাগ হয়ে যাওয়া। আজ রাত বারোটায় এক প্রীতি ম্যাচে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি মুখোমুখি হলেও ব্রাজিল কোচ তিতে তো আগেই জানিয়ে দিয়েছেন এই দুই দলের লড়াইয়ের সত্যিকার অর্থেই ‘প্রীতি’র কিছু নেই।

ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনা ধুন্ধুমার লড়াইয়ের চব্বিশ ঘণ্টা আগে আশ্চর্য রকম ভাবে নির্লিপ্ত ফুটবলপ্রেমীরা! মঙ্গলবার জেদ্দায় ফিফা ফ্রেন্ডলিতে মেসি বনাম নেইমার দ্বৈরথই যে হচ্ছে না।

রাশিয়া বিশ্বকাপের শেষ ষোলোয় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে হারের পরেই আর্জেন্টিনার জাতীয় দল থেকে বিশ্রাম নিয়েছেন মেসি। তাই ফিফা ফ্রেন্ডলিতে আর্জেন্টিনা খেললেও আগ্রহ নেই ভক্তদের। মেসি না থাকায় হতাশ নেইমারও।

আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে এক সাক্ষাৎকারে ব্রাজিল তারকা বলেছেন, ‘‘মেসি খেললে ফুটবলেরই উপকার হবে। ওর খেলা দেখা ফুটবলপ্রেমীদের কাছে সেরা প্রাপ্তি।’’ নেমারের আশা, দ্রুতই ব্রাজিলের জার্সি গায়ে মেসির আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে খেলবেন।

মেসি আর্জেন্টিনার হয়ে না খেলায় হতাশ ব্রাজিলের অন্য ফুটবলারেরাও। জোয়াও মিরান্দা ফিলহো বলেছেন, ‘‘মেসি-নেমার দু’জনেই এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা ফুটবলার। ওদের খেলা দেখার জন্যই সবাই অপেক্ষা করে থাকে।’’ দানিলো দা সিলভার কথায়, ‘‘মেসি, নেমারের মতো ফুটবলার দলকে সব সময় অন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়। আশা করছি, মঙ্গলবার নেমার সেই কাজটাই করবে।’’

ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনা ফিফা ফ্রেন্ডলি ঘিরে ফুটবলপ্রেমীরা আগ্রহ হারিয়েছেন। কিন্তু মঙ্গলবারের মর্যাদার লড়াইয়ে পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা জিততে মরিয়া। ম্যাচের আগে সতীর্থদের উজ্জীবিত করার দায়িত্ব নিজের কাঁধেই তুলে নিয়েছেন নেমার। তাঁর কথায়, ‘‘সতীর্থদের বলেছি, এই ম্যাচটা আমাদের কাছে স্পেশ্যাল। কারণ, আর্জেন্টিনা আমাদের চিরশত্রু। আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে কোনও ম্যাচই বন্ধুত্বপূর্ণ হতে পারে না।’’ তিনি যোগ করেছেন, ‘‘আর্জেন্টিনা দলে প্রচুর ভাল ফুটবলার রয়েছে। আমাদের দায়িত্ব ম্যাচটাকে সুন্দর করে তোলা।’’ আর্জেন্টিনা ম্যাচের প্রস্তুতির মাঝেই মরুভূমি সফরে গিয়েছিলেন নেমাররা।

ফিফা ফ্রেন্ডলিতে আগের ম্যাচে ব্রাজিল ২-০ হারায় সৌদি আরবকে। গোল করেছিলেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও আলেক্স সান্দ্রো। আর্জেন্টিনা ৪-০ উড়িয়ে দেয় ইরাককে। গোল করেছিলেন লাওতারো মার্তিনেস, রবের্তো পেরেইরা, জার্মান পেসেল্লা ও ফ্রাঙ্কো কার্ভি। একা মেসি নন, আর এক তারকা সের্খিয়ো আগুয়েরোও এই মুহূর্তে জাতীয় দলের বাইরে।

ফিফা ফ্রেন্ডলিতে আর্জেন্টিনার নতুন কোচ লিয়োনেল স্কালোনি একঝাঁক তরুণ ফুটবলারকে সুযোগ দিয়েছেন। নেমারের মতে, সন্ধিক্ষণের সামনে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের জাতীয় দল। তিনি বলেছেন, ‘‘আমাদের দলেও একঝাঁক নতুন ফুটবলার। প্রত্যেকেই নিজেদের যোগ্যতায় সুযোগ পেয়েছে। ওদের সামনে এটাই নিজেদের প্রমাণ করার সেরা মঞ্চ।’

 

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending