আম্বানি কন্যার জন্য জলের মধ্যেই তৈরি করা হচ্ছে রূপকথার দেশ

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ভারতের ধনীতম ব্যক্তির মেয়ের বিয়ে বলে কথা। তাই বিয়ের আসর নয় যেন বোনা হচ্ছে রূপকথার গল্প। সুদূর ইতালিতে হয়েছে এনগেজমেন্ট। এবার এদেশেই হবে বিয়ের অনুষ্ঠান। বছরের সব সেলিব্রিটি ম্যারেজকে হয়ত ম্লান করে দেবে ইশা আম্বানির বিয়ে। কত হীরে-জহরতে সাজবেন তিনি, সেটা জানা নেই। তবে প্রি-ওয়েডিং সেরিমনির জন্য উদয়পুরে তৈরি হচ্ছে জলপরীর দেশ।

৮ ও ৯ ডিসেম্বর উদয়পুরের লেক পিচোলায় বসবে সেই আসর। অন্তত হাজার খানেক অতিথি উপস্থিত থাকবেন সেখানে। কীভাবে সাজানো হচ্ছে সেই লেক, পুরো পরিকল্পনা উঠে এসেছে সংবাদমাধ্যমে।

Untitle

জলের মধ্যেই তৈরি করা হচ্ছে রূপকথার দেশ। তৈরি করা হবে ভাসমান মঞ্চ। থাকবে অজস্র নৌকা। অপূর্ব প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে মোড়া লেক পিচোলার উদয় বিলাস ঘাটে রাখা হবে এক বিশাল ভাসমান মঞ্চ। সেখানে একসঙ্গে হাজার অতিথি উপস্থিত থাকতে পারবেন। এমনভাবে লেক সাজানোর প্রস্তাব দিয়েছে আম্বানি পরিবার।

এছাড়া লেক জুড়ে থাকবে একাধিক নৌকা। সেসব নৌকায় থাকবে অম্বানিদের পূজিত দেবতা শ্রীনাথজির মূর্তি। ভাসমান মঞ্চেই পারফর্ম করবেন নৃত্যশিল্পীরা। জানা গিয়েছে, ভারতীয় সংস্কৃতিতেই হবে অনুষ্ঠান। লেকের জলে দেবতাকে মহা আরতির ব্যবস্থাও করছে অম্বানি পরিবার। জলের মাঝে ফোয়ারা করার পরিকল্পনাও নিয়েছে অম্বানিরা।

U-1

আপাতত লেকের জলে ওইসব মঞ্চ বানানো কতটা সম্ভব সেব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে কথাবার্তা চলছে। বিষয়টি দেখছে লেক কনজারভেশন অথরিটি। রাজস্থানের মুখ্যসচিবের কাছেও চিঠি পাঠানো হয়েছে।

পেশায় বিজনেসম্যান আনন্দ পীরামলের সঙ্গে বিয়ে হচ্ছে মুকেশ আম্বানির একমাত্র মেয়ে ইশা। গত সেপ্টেম্বরে ইতালির লেক কোমোতে তাঁদের আংটি বদল হয়। সেখানেও রূপকথার ঢঙেই সাজানো হয়েছিল। সম্প্রতি বিয়ে উপলক্ষে পরিবারের এক পুজোতে সব্যসাচীর ডিজাইন করা লেহেঙ্গা ও গয়না পরেছিলেন ইশা। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। একেবারে রাজকন্যার মত দেখতে লাগছে তাঁকে।

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending