কিউইদের হোয়াইটওয়াশ করল পাকিস্তান

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ২৯ বলে ২৩ রানের বিনিময়ে খোয়াতে হয় ৮টি উইকেট৷ দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এমন ভয়ানক ব্যাটিং বিপর্যয়ের মাশুল দিয়ে পাকিস্তানের কাছে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হল নিউজিল্যান্ড৷

টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তান ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৬৬ রান তোলে৷ হাফসেঞ্চুরি করেন বাবর আজম ও মহম্মদ হাফিজ৷ জবাবে নিউজিল্যন্ড ১৬.৫ ওভারে অবআউট হয়ে যায় ১১৯ রানে৷ একা কুম্ভ হয়ে লড়াই চালান দলনায়ক উইলিয়ামসন৷ তবে ব্যর্থ হয় তাঁর একক প্রচেষ্টা৷

প্রথম দু’টি ম্যাচে জিতে পাকিস্তান আগেই সিরিজ পকেটে পুরেছিল৷ শেষ ম্যাচে ৪৭ রানে জয় তুলে নিয়ে কিউয়িদের হোয়াইটওয়াশের বৃত্তও পূর্ণ করে তারা৷

পাক ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নেমে ফকর জামান ১১ রান করে আউট হন৷হাফিজের সঙ্গে জুটি বেঁধে বাবর দ্বিতীয় উইকেটে ৯৪ রান যোগ করেন৷ শেষে ৭৯ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে আউট হন তিনি৷ ৫৮ বলের ইনিংসে ৭টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন বাবর৷

শোয়েব মালিক চার নম্বরে ব্যাট করতে নেমে তিনটি বাউন্ডারির সাহায্যে ৯ বলে ১৯ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন৷ আসিফ আলিকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানকে লড়াই করার রসদ এনে দেন হাফিজ৷ আসিফ ২ রান করে নটআউট থাকেন৷হাফিজ আপরাজিত থেকে যান ব্যক্তিগত ৫৩ রানে৷ ৩৪ বলের ইনিংসে তিনি ৪টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন৷

পাল্টা ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড ১৩ রানের মধ্যে মুনরো (২) ও গ্র্যান্ডহোমের (৬) উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে যায়৷ সেখান থেকে ফিলিপস-উইলিয়ামস জুটি ম্যাচে ফেরায় কিউয়িদের৷

একসময় ৯৬ রানের মাথায় তিন উইকেট হারানো নিউজিল্যান্ড ইনিংসে শেষে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে৷লোয়ার অর্ডারের কোনও ব্যাটসম্যানই ক্রিজে থিতু হতে পারেননি৷ উইলিয়ামসন ৮টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৬০ রান করে আউট হন৷ তবে দলের কাজে লাগেনি তাঁর অধিনায়কোচিত ইনিংস৷ফিলিপস যোগদান রাখেন ২৬ রানের৷

পাকিস্তানের হয়ে তিনটি উইকেট নেন শাদব খান৷ দু’টি করে উইকেট ইমদ ওয়াসিম ও ওয়াকাস মাকসুদের৷একটি উইকেট দখল করেন আশরাফ৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন বাবর৷

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending