টানা ১২ দিন স্নান করেননি আমির!

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ছবির ক্লাইম্যাক্স দৃশ্য৷ টানটান উত্তেজনা৷ কখন কী হয়, ভিলেন জিতবে নাকি হিরো৷ কার মৃত্যু হবে অবশেষে৷ অসংখ্য ট্যুইস্ট অ্যান্ড টার্নে ভরা কমার্শিয়াল ছবির ক্লাইম্যাক্স দৃশ্য৷ এমন অগণিত মুভি রয়েছে যার ক্লাইম্যাক্স সিক্যুয়েন্স প্রায় ১0-১২ দিন ধরে শ্যুট করা হয়েছিল৷

পরিচালকের চাই পারফেক্ট শট৷ তার জন্য যতদিন সময় লাগুক না কেন, মনের মতো দৃশ্য না হলে দীর্ঘদিন ধরে শ্যুট করা বাধ্যতামূলক৷ পরিচালকের পাশাপাশি অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও যদি দৃঢ়তা বজায় রাখে তাহলে তো বেস্ট শট পেতে পরিচালক বাধ্য৷

সে সমস্ত প্যাশনেট অভিনেতার তালিকায় উজ্জ্বল নক্ষত্রের মতো রয়েছে আমির খানের নাম৷ অনেকেই হয়তো জানেন না, ‘গুলাম’ ছবির শ্যুটিং সময় আমির এতটাই প্যাশনেট হয়ে উঠেছিলেন যে টানা ১২ দিন তিনি স্নানই করেননি৷ এর পেছনে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ কারণ৷

ছবির ক্লাইম্যাক্স শ্যুট হওয়ার কথা টানা ১০-১২ দিন ধরে৷ মারপিটের দৃশ্য৷ অর্থাৎ রক্তারক্তির সিন৷ সেরকমই হেভি মেকআপ৷ প্রতিদিন যে মারপিটের লুকের মেক আপ একই রকমের হবে তার কোনও গ্যারেন্টি নেই৷

আর নেই বলেই আমির নিজেই সেই দায়িত্ব নিয়ে নিলেন৷ সিদ্ধান্ত নিলেন ১০-১২ দিন স্নান করবেন না৷ যতই অসুবিধা হোক না কেন৷ প্রথম দিনের মেক আপে যাতে ধুলো বালি লেগে আরও ইনটেন্স লুক আসে, রিয়েল মনে হয়, তেমনটাই চেয়েছিলেন মিস্টার পারফেকশনিস্ট৷

তাই ১০-১২ দিনের স্নান ত্যাগে বেশ ভালই সফল হয়েছিলেন তিনি৷ ক্লাইম্যাক্স ছাড়াও এই ছবির ট্রেনের দৃশ্যটিও সকলের কাছে মনে রাখার মতো৷ প্রসঙ্গত, আমির এখন তাঁর আগামী ছবি ‘ঠগস অব হিন্দোস্তান’র প্রচার নিয়ে বেজায় ব্যস্ত৷

সম্প্রতি মুক্তি পয়েছে ছবির ট্রেলার৷ ২৪ ঘন্টায় ৩২ মিলিয়ন ভিউজ ছাড়িয়েছে ট্রেলারের৷ ছবির ট্রেলার নিয়ে প্রশংসার যেমন হয়েছে, ঠিক একই ভাবে ট্রোলও হয়েছে৷ হলিউড ব্লকবাস্টার ‘পাইরেটস অব দি ক্যারিবিয়ান’র নকল নাকি আমির এই ছবি, এমনটাই দাবি করছেন ফ্যানেরা৷ তৈরি হচ্ছে অসংখ্য মিমও৷

‘পাইরেটস অব দি ক্যারিবিয়ান’র বহু দৃশ্যের ‘ঠগস অব হিন্দোস্তান’র ট্রেলারের কিছু দৃশ্যের সঙ্গে মিল খুঁজে পয়েছে নেটিজেনরা৷ এছাড়াও বলা হচ্ছে জ্যাক স্প্যারোর লুকও কপি করেছেন আমির!

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending