দি থাইরয়েড সেন্টার -এ টিউমার অ্যাবলেশন সেন্টারের অগ্রযাত্রা

বাংলাদেশেই এখন স্বল্প মূল্যে বিদেশী চিকিৎসা

জ.ই. বুলবুল:

দি থাইরয়েড সেন্টার লিঃ ও বিটমির- এর উদ্যোগে ‘বিটমির জাতীয় এ্যাওয়ার্ড- ২০১৮‘ বিতরণ এবং ‘টিউমার অ্যাবলেশন সেন্টার’এর শুভ উদ্বোধন করা হয়।

রাজধানীর সুবাস্তু ইত্তেহাদ স্কয়ার ধানমন্ডিতে গত শনিবার এর অগ্রযাত্রা শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে নিনমাস ,বিএসএমএমইউ  এর  সহযোগী অধ্যাপক, “দি থাইরয়েড সেন্টার লিঃ  বিটমিরের ও চেয়ারম্যান, ডাঃ এ.কে.এম ফজলুল বারী’র সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি বাংলাদেশ থাইরয়েড সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব হেলথ সাইন্স ভাইস চ্যান্সেলর, প্রফেসর ডাঃ ফরিদুল আলম, বিশেষ অতিথি প্রফেসর ডাঃ মিজানুল হাসান ও প্রফেসর ডাঃ মোঃ মনজুরুল আলম সহ আরো অনেকে বিটমির কার্যক্রম তুলে ধরে বিষদ বক্তব্য রাখেন। পরে গুণীজনদের সম্মাননা এ্যাওয়ার্ড বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য যে,  প্রফেসর সায়বা আক্তারকে প্রসূতি চিকিৎসা ক্ষেত্রে তার অনন্য অবদানের জন্য ‘বিটমির জাতীয় এ্যাওয়ার্ড- ২০১৭’প্রদান করা হয় এবং বাংলাদেশ থাইরয়েড সোসাইটির প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ফৌজিয়া মোসলেমকে বাংলাদেশে আল্ট্রসনোগ্রাম এর পথিকৃৎ হিসেবে ‘বিটমির জাতীয় এ্যাওয়ার্ড- ২০১৮’প্রদান করা হয়।

Unt-1

অনুষ্ঠানে ডাঃ এ.কে.এম ফজলুল বারী বলেন, আল্ট্রাসনোগ্রাম শিক্ষা ও প্রসারে বিটমির অগ্রনী ভূমিকা পালন করছে। বিগত ১২ বছরে প্রায় দশ হাজার চিকিৎসক ডিপ্লোমা ও সার্টিফিকেট কোর্স সফলতার সাথে সম্পন্ন করে দেশে ও দেশের বাইরে যথাযথ যোগ্যতা ও সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন যে, শুধুমাত্র বিটমির -ই কালার ডপলার ও ফোর ডি কোর্স এবং ২০১৯ সালের জানুয়ারী হতে এম.এস. সি. ইন মেডিক্যাল ইমেজিং নতুন কোর্স শুরু হতে যাচ্ছে।

বিটমির ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টিগ্রেটেড মেডিসিন (ওয়াইম), দিল্লী, ইউ.এস.এ. এর বাংলাদেশ চ্যাপ্টার মনোনীত হওয়ায় এবং বাংলাদেশ হতে ডাঃ এ.কে.এম. ফজলুল বারী “ওয়াইম” এর গভর্নিং বোর্ডের সদস্য মনোনীত হওয়ায় তিনি সকল চিকিৎসক সমাজ ও বিটমিরের শুভানুধ্যায়ীদের ধন্যবাদ জানিয়ে আরো বলেন, ক্যান্সার নির্ণয়ে আল্ট্রাসনোগ্রাম “ইলাস্টোস্ক্যান” বিটমির -ই প্রথম ২০১১ সালে শুরু হয়। এই পদ্ধতির মাধ্যমে প্রায় ৮৭% থাইরয়েড ও ব্রেস্ট ক্যান্সার নির্ণয় সম্ভব।

 

Un-1

 

তিনি বলেন, নতুন চালু হওয়া এই “টিউমার এ্যাবলেশন সেন্টারে” কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়া কম খরচে রক্তপাতহীন টিউমার এ্যাবলেশন (অপসারণ) করা হবে, যা বাংলাদেশে প্রথম। এই পদ্ধতিতে আল্ট্রাসনোগ্রাম গাইডেড রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি/ মাইক্রোওয়েভ এর মাধ্যমে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় টিউমার/ক্যান্সার এ্যাবলেশন (অপসারণ) করা হবে। প্রাথমিকভাবে থাইরয়েড নডিউল/ ক্যান্সার ও লিভার ক্যান্সারের স্বল্প মূল্যে চিকিৎসা করা হবে।

ঠিকানা: সুবাস্তু ইত্তেহাদ স্কয়ার, বাসা – ১১ (৬ষ্ঠ তলা), রোড নং-৫, ধানমন্ডি, ঢাকা। ০১৯৭৩২১৪৮৮৭

 

 

 

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending