ধর্ষিতার পরিচয় প্রকাশ্যে আনায় ভারতের ১২ মিডিয়াকে জরিমানা

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ভারতের প্রথম সারির সংবাদ মাধ্যমগুলিকে ১০ লক্ষ টাকা করে জরিমানা করল দিল্লি হাইকোর্ট৷ কাঠুয়া গণধর্ষণের পর খুন হওয়া ৮ বছরের মেয়েটির পরিচয় ফাঁস হয়ে যাওয়ার ঘটনায় রীতিমত ক্ষুব্ধ হাইকোর্ট৷ গণধর্ষিতা মেয়েটির পরিচয় প্রকাশ্যে আনায় ১২টি মিডিয়া হাউসকে তাই ১০ লক্ষ টাকা করে আদালতে জমা করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ৷

বুধবার দিল্লি হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি গীতা মিত্তল ও বিচারপতি সি হরি শঙ্করের ডিভিশন বেঞ্চ এই নির্দেশ জারি করেছেন৷ নির্দেশে বলা হয়েছে, এই দশ লক্ষ টাকা আদালতের রেজিস্টার জেনারেলে জমা করতে হবে৷ সেখান থেকে জম্মু কাশ্মীরের লিগ্যাল সার্ভিস কর্তৃপক্ষের কাছে টাকা ট্রান্সফার করা হবে৷ যৌন নিযার্তনের শিকার মেয়েদের পরিবারের হাতে সেই টাকা তুলে দেওয়া হবে৷

এদিকে বিভিন্ন মিডিয়া হাউসের নিযুক্ত আইনজীবিরা হাইকোর্টে কাঠুয়ার নির্যাতিতার পরিচয় সামনে আনার জন্য ক্ষমা চান৷ এবং জানান, তাদের ক্লায়েন্টরা ভেবেছিলেন মেয়েটির পরিচয় ও তাঁর সঙ্গে যে ঘটনা ঘটেছে তা প্রকাশ্যে এলে দোষীদের শাস্তির পথ মসৃণ হবে৷ সেই ভাবনা থেকে এই কাজ করেছে মিডিয়া হাউজগুলি৷ সেই সঙ্গে আইনজীবিরা জানিয়েছেন, ওই দশ লক্ষ টাকা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা করা হবে৷

এখন অবধি ১২টি মিডিয়া হাউস মেয়েটির পরিচয় সামনে আনার জন্য আদালতের নেক নজরে পড়েছে৷ এই তালিকায় আছে, টাইমস অফ ইন্ডিয়া, দ্য হিন্দু, দ্য স্টেটসম্যান, দ্য পায়নিয়ার, নভভারত টাইমস, এনডিটিভি, ফার্স্টপোস্ট, দ্য উইক, রিপাবলিক টিভি, দ্য ডেকান ক্রনিক্যালস, ইন্ডিয়া টিভি এবং ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস৷ এদের মধ্যে ন’টি সংবাদমাধ্যম আদালতে ক্ষমা চেয়েছে৷

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending