ফাহিম ফিরোজের দু’টি কবিতা

১-
ভোঁ-দৌড়

 

আড্ডা, তোমার নখের ভেতর ঢোকে মুখ দিয়ে বের হয়
কইলা… কইলা প্রথম রাইতে, এখানে থাকতে চাও আজ
এই ফাঁকে, কে যেন আমার মুখের গভীরে আড্ডা ঠেলে দ্যায়
মেয়েটি দেখলো! খুশি চিত্তেই থাকতে বললাম, সঙ্গে নিরাপত্তা
এই দিকে, আমার বন্ধুর লগে সে বাইরে গেল। দ্রুত ফিরে এসে
বলল, মায়ের মোবাইল…। কে যেন বলল, যত সব!
পাশে ছিল পেঁপেগাছ; বোঁটা ছিঁড়ে হঠাৎই নিচে…
আজিকার আড্ডাও তাই।

 

২-
দোহাই পর্ব

 

পায়ের জীবন্ত নখ কেউ
তুলে ফেললেও
কইও না… কইও না কারো সেই রাতের কথন
রাত কিভাবে মধুর সংঘাতে লিপ্ত ছিল
আরেক নিশির লগে। তার থেকে
ফুটে ছিল ফুল
কিছুগন্ধ টের পেয়েছিল হিজড়ার দল
কিন্তু চতুর জানালা তার উপর একটি
কালোপর্দা মেলে ধরে ছিল
আর কী, এভাবে সে যাত্রায় রক্ষা পেয়েছিল!

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending