মাত্র ১৬ আলোকবর্ষ দূরেই মিলল আরেক পৃথিবী!

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ব্রহ্মাণ্ডে প্রাণের সন্ধান পেতে যখন বিজ্ঞানীরা হন্যে হয়ে ঘুরছে, তখন আরও এক গ্রহের সন্ধান মিলল মহাকাশে। এর চরিত্রও নাকি পৃথিবীরই মতন। তবে, এরে প্রাণ আছে কিনা তা ভবিষ্যতই বলবে।

নতুন এই গ্রহ আয়তনে পৃথিবীর প্রায় দ্বিগুণ। এই গ্রহের খোঁজ মিলেছে আলাদা একটি স্টার সিস্টেমে। যার নাম ৪০ এরিদানি। কল্পবিজ্ঞানের জনপ্রিয় গল্প স্টার-ট্রেকের অন্যতম চরিত্র স্পোরক-এর গ্রহ ভালকান এখানে অবস্থিত।

ইউনিভার্সিটি অফ ফ্লোরিডার বো-মা এবং তাঁর কয়েকজন সহকারী অ্যারিজোনা থেকে ১.৩ মিটার টেলিস্কোপের সাহায্যে পৃথিবীর মতো এই গ্রহটিকে খুঁজে পেয়েছেন। এর ঘনত্ব পৃথিবীর তুলনায় সাড়ে আট গুণ বেশি। এই গ্রহটি তার সৌরবলয়ের মূল নক্ষত্রকে ৪২ দিনে একবার প্রদক্ষিণ করে। এই নক্ষত্র এইচডি ২৬৯৬৫ বা ৪০ এরিদানি নামে পরিচিত। এই নক্ষত্র পৃথিবী থেকে মাত্র ১৬ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত।

এই নক্ষত্রের বয়স সূর্যের মতো হলেও তা অনেকটাই ঠাণ্ডা এবং এর ঘনত্বও অনেক কম। ১৯৯১ সালে স্টার-ট্রেকের জন্মদাতা জেনি রোডেনবেরি লিখেছিলেন ৪০ এরিদানি ভালকান গ্রহের মূল স্টার। এই বলয়ে তিনটি মূল স্টার রয়েছে। যার জন্য একে ট্রিপল স্টার সোলার সিস্টেম বলা হয়। প্রত্যেক স্টারেরই নিজস্ব কিছু গ্রহ রয়েছে। যারা শুধু নির্দিষ্ট একটি মূল স্টারকেই প্রদক্ষিণ করে। যেমন পৃথিবীর মতো দেখতে গ্রহটি ৪০ এরিদানি-কে প্রদক্ষিণ করে।

পৃথিবী থেকেই খালি চোখে প্রত্যক্ষ করা যেতে পারে উজ্জ্বল এবং জ্বলজ্বলে ৪০ এরিদানিকে। পৃথিবীর মতো দেখতে চিহ্নিত হওয়া গ্রহটির বায়ুমণ্ডলে ঘন গ্যাসবীয় জিনিসের আস্তরণ দেখা গেছে।

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending