মাথায় মল ঢেলে মাদ্রাসা সুপারকে লাঞ্ছিত, আটক ২

খান মাইনউদ্দিন, বরিশাল: বাকেরগঞ্জের রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে সভাপতি হতে না পাড়ায় মাদ্রাসা সুপার মাও. আবু হানিফকে প্রকাশ্যে মানুষের মল ঢেলে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। গত শুক্রবার কাঠালিয়া গ্রামের মুসল্লি বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী বিক্ষোভে ফুসে উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, কাঠালিয়া দারুস সুন্নাত দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটিতে জাহাঙ্গীর হোসেন খন্দকারকে  বাতিল করে ওই এলাকার অ্যাড. মো. মুজিবুর রহমানকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয় । এ খবর শুনে ক্ষিপ্ত হন জাহাঙ্গীর। গত ১১ মে (শুক্রবার) সকাল ৯টায় দিকে জাহাঙ্গীর খন্দকার তার দলবল নিয়ে মাদ্রাসা সুপার মাওলানা আবু হানিফের মাথায় মানুষের মল ঢেলে লাঞ্ছিত করে, ভিডিও ধারণ করে তা আবার ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয়।

এ ঘটনায় মাওলানা আবু হানিফ বাদি হয়ে ৮ জনকে আসামী করে বাকেরগঞ্জ  থানায় একটি মামলা  দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে এই ঘটনায় জড়িত মৃত মো. হাসেম মুসল্লির পুত্র মো. মিনজু (৩৫) ও মো. বেল্লাল হোসেন নামে ২ জনকে আটক করেছে।

স্থানীয়রা জানান, রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য  মেহেদী হাসানের পিতা জাতীয় পার্টির দাপট দেখিয়ে এলাকায় রামরাজত্ব কায়েম করছে। সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে এলাকার অনেক পরিবারের ভিটেমাটি জোরপূর্বক দখল করেছে।

মাও. আবু হানিফ বলেন, মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হতে না পেরে আমার কাছে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করেন জাহাঙ্গীর। তাদের দাবীকৃর্ত টাকা না দেয়ার কারণে প্রকাশ্যে আমার মাথায় মল-মূত্র ঢেলে লাঞ্ছিত করেছে।

এ বিষয় বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, এই ধরনের ন্যাক্কার জনক ঘটনায় জড়িত যারা তারা যে দলের হোক তাদের সকলের বিচার হবে। ইতিমধ্যে আমরা দুইজনকে গ্রেফতার করেছি।

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending