‘লিভ-ইন’ এ সায় দিল ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ প্রাপ্তবয়স্করা লিভ-ইন সম্পর্কে সায় দিল দেশের শীর্ষ আদালত৷ এক্ষেত্রে ছেলের বিবাহযোগ্য বয়স না হলেও (২১ বছর বয়স) লিভ-ইনের পক্ষেই রয়েছে শীর্ষ আদালত৷

আদালতের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বিয়ের পর যদি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কারও বিয়ের বয়স না হয়ে থাকে তাহলে সে লিভ-ইন সম্পর্কে থাকতে পারে৷ এতে তাদের বৈবাহিক সম্পর্কের ওপর কোনও প্রভাব পড়বে না৷ পাশাপাশি এও বলা হয়েছে, জীবনসঙ্গিনী নির্বাচনের অধিকারে কেউ হস্তক্ষেপ করতে পারে না৷ কোনও যুবকের বিয়ের বয়স(২১) না হলেও সে তার স্ত্রীর সঙ্গে লিভ-ইন করতে পারে৷

প্রসঙ্গত, কেরলের একটি মামলাকে ঘিরেই সবকিছু৷ ২০১৭ সালের এপ্রিলে কেরলের তুষারার বয়স ১৯ হলেও, নন্দকুমারের বয়স ছিল ২০, যা ছেলেদের ক্ষেত্রে বিয়ের বয়স বলে গণ্য হয় না৷ দুজনের মধ্যে বিয়ে হয়, কিন্তু পাত্রীর বাবা, ছেলের বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা দায়ের করে৷

কেরলের উচ্চ আদালত পর্যন্ত বিষয়টি গড়িয়ে যায়৷ আদালত এই বিয়েকে অগ্রাহ্য করে তুষারাকে তার বাবার কাছে পাঠিয়ে দেয়৷ কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত হাইকোর্টের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যায়৷

কলকাতা২৪

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending