সিরিয়ায় মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, সঙ্গী ব্রিটেন ও ফ্রান্স

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ সিরিয়ার আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে এবার কার্যত একযোগে যুদ্ধ ঘোষণা করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্স। সিরিয়ায় মজুত রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার ধ্বংস করার জন্যই মার্কিন সেনাবাহিনীকে হামলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার অল-আসাদের রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার সম্পূর্ণ ভাবে ধ্বংস না হওয়া পর্যন্ত এই হামলা চলবে বলেই জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

হোয়াইট হাউস সূত্রে জানানো হয়েছে, সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার ধ্বংস করতে মার্কিন সেনা হামলা করেছে। সিরিয়ার সাধারণ মানুষকে বাঁচাতেই এই হামলা। কারণ দেশের মানুষের ওপর রাসায়নিক অস্ত্র হামলা করতে পারে শুধুমাত্র একজন নর-রাক্ষসই।

গত এক সপ্তাহে দামাস্কাস লাগোয়া পূর্ব গৌতায় বিষ গ্যাস প্রয়োগ করে কমপক্ষে ১০০ জনকে হত্যা করার অভিযোগ তুলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ ন্যাটোভুক্ত দেশগুলি। শুক্রবার হোয়াইট হাউজে ট্রাম্প বক্তব্য রাখার সময়ই শুরু হয় হামলা। একের পর এক জোরালো বিস্ফোরণ শোনা যায় সিরিয়ার রাজধানী দামাস্কাসে। আসাদ সরকারের অস্ত্রভাণ্ডারে মার্কিন হামলাকে সমর্থন করেছেন ব্রিটিশ প্রেসিডেন্ট থেরেসা মে।

প্রসঙ্গত, দামাস্কাসের বারজায় রয়েছে দেশের সবথেকে বড় রাসায়নিক অস্ত্রভাণ্ডার। সিরিয়া অবশ্য এই আক্রমণের কড়া জবাব দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে। এদিকে, এই ঘটনায় সিরিয়ার পাশে দাঁড়িয়েছে রাশিয়া। তারা হুমকি দিয়েছে, এই হামলার পাল্টা ফল তাদের ভুগতে হবে।

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending