জ্বলে উঠুক দ্রোহের আগুন ॥ কাজী রফিক

তুমি চলে গেলে-
দগ্ধ স্পর্শ রেখে এ মাটিতে,
তুমি চলে গেলে
অগ্নিজ্বালা দীর্ঘশ্বাস ছড়িয়ে
সবার বুকে ,
তুমি চলে গেলে
প্রতিবাদের আগুনে পুড়তে পুড়তে।

বাতাসে ভাসে লাশের ঘ্রাণ,
হিমশীতল জলের স্রোতধারা
বয়ে চলে রক্তনালীতে।
অথচ এই জনপদে কচ্ছপ পিঠে
চলমান মানুষগুলো হাঁটছে
অন্ধকার পথ ধরে।

একটি প্রতিবাদ জ্বলে উঠে
ফুস করে নিভে যায় ফানুসের মতো,
তুমি চিৎকার করে বল্লে,
লানত পড়েছে এই শহরে।
তনু মিতু কিংবা আরো কত
অগনন তুমি, নিরন্তর বহমান
কালানলে পুড়ছে,
উদ্ভট এক সর্বগ্রাসী ক্ষুধা
উদগীরণ করে আগুন জল,
অস্পৃশ্য আদমের মিছিল
থেমে যায় ফসিলে।
নগ্নতার কাছে ফিরে চলে সভ্যতা,
বক্ষমান চোখের আড়ালেই
লুকিয়ে থাকে মৃত্যুর ছায়ারা।

ধিক, ধিক মেরুদন্ডহীন প্রাণিবিশেষ,
ত্রিশঙ্কূ ঝুলছে আকাশে,
অলৌকিক মুক্তি নেমে আসবে
শূন্যতা থেকে?
প্রতীক্ষার প্রহর শেষ হলেই
নির্লিপ্ত চৈতন্যের রুদ্ধতা ভেঙ্গে
জেগে উঠবে দ্রোহের আগুন।

জেগে উঠবে দ্রোহের আগুন।

১বৈশাখ ১৪২৬

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending