একটাই পৃথিবী ॥ কাজী জুবেরী মোস্তাক

সেদিন ওরা বাঁচবে বলে চারিদিকে আগুন জ্বেলেছিল
অস্ত্র আর গোলা-বারুদের পশরা সাজিয়ে বসেছিল
মানুষকে কোণঠাসা করে নিজেকে প্রচার করেছিল ।

সেদিন ওরা ভুলেছিল সেখানেই ওদেরও ঘর ছিল
সেই অস্ত্র যে তাদের দিকে তাক হতে পারে ভুলেছিল
একদিন ওরাও সংখ্যালঘু হতে পারে ভুলে গিয়েছিল ।

সেদিন ওরা অস্ত্র হিসেবে ধর্মকেও ব্যবহার করেছিল
ধর্মের অমোঘ বাণী ভুলিয়ে রক্তাক্ত করতে শিখিয়েছিল
কিন্তু প্রতিটি ধর্মের অহিংস বাণী ঠিকই গোপন করেছিল ।

সেদিন গোলা-বারুদের মিছিলে নিজেকেও হারিয়েছিল
হিংসা বিদ্বেষে ছড়িয়ে বিশ্বটার দখল নিতে চেয়েছিল
ভালোবাসার চেয়েও শক্তিশালী অস্ত্র হয় না ভুলে গিয়েছিল ।

সেদিন ওরা গণতন্ত্র নামে আধুনিক দাসত্বে বন্দী হয়েছিল
ভেবেছিল গণতন্ত্রটা দাসত্বর মুক্তির জন্যই এসেছিল
কিন্তু ওরা জানতোনা এই গণতন্ত্র দাসত্বকে বৈধ হয়েছিল ।

সেদিন আর বেশি দুরে নাই যেদিন সবারই ঘুম ভাঙবে
হিংসা বিদ্বেষ হানাহানি ভুলে এক হয়ে পথ চলবে
একটাই মানচিত্রেই সেদিন একটা পৃথিবীও ঠিক হবে ।

 

ওদের বলে দিও 

 

ওরা জানেইনা যে আমার মৃত্যু নেই
ওদের বলে দাও, ওদের লাঠির আঘাতে আমি ইতিহাস হবো ।

ওরা জানেইনা আমার শক্তির উৎস
ওদের বলে দাও, ওদের প্রতিটি আঘাতে যে আমি শক্তি পাই ।

ওরা জানেইনা আমিও আগ্নেয়গিরি
ওদের বলে দাও, একবার জ্বলে উঠলে ওরা ধ্বংস হয়ে যাবে ।

ওরা জানেইনা আমি যে বেঁচে আছি
ওদের বলে দাও, প্রতিটি নব প্রজন্ম মাঝে আমি বেঁচে থাকি ।

ওরা জানেইনা আমার কি পরিচয়
ওদের বলে দাও, প্রতিটি নির্যাতিত মানুষই আমার আত্মীয় ।

ওরা জানেইনা আমার দেশ নেই
ওদের বলে দাও, শান্তি ও বিজয়ের পতাকায় আমি থাকবো ।

 

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending