জাবি উপাচার্যের পদত্যাগের সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে আন্দোলনকারীরা

জাবি প্রতিনিধি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পে আর্থিক কেলেঙ্কারীর সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের পদত্যাগের দাবি করেছে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। তারা আগামী পহেলা অক্টোবরের মধ্যে উপাচার্যকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগের জন্য সময় বেঁধে দিয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলাভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ এর পক্ষ থেকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি তোলে। এসময় উপাচার্যকে ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ের জন্য অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়। গত কয়েকদিন ধরে তিনদফা দাবিতে চলমান আন্দোলনের সমাধানে দ্বিতীয় দফা বৈঠকে দীর্ঘ তিন ঘন্টা আলোচনা করেও সমঝোতায় পৌছতে ব্যর্থ হলে আন্দোলনকারীরা এ সিদ্ধান্ত নেয়।

সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনকারীদের মধ্য থেকে অধ্যাপক রায়হান রাইন বলেন, ‘উপাচার্যের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ ওঠার পরে এই গুরুত্বপূর্ণ পদে থাকার তার নৈতিক অধিকার নেই। আগামী পহেলা অক্টোবরের মধ্যে তাকে সসম্মানে পদত্যাগ করতে হবে। নতুবা কঠোর কর্মসূচিতে যাওয়া হবে। এর মধ্যে নিয়মতান্ত্রিক কর্মসূচি চলবে।’ এসময় আন্দোলনকারীরা আসন্ন ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে (২২ সেপ্টম্বর থেকে ২ অক্টোবর) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামকে সকল পরীক্ষাকেন্দ্রে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন আন্দোলনকারী শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

এদিকে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে গতকাল (বৃহস্পতিবার) ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি সমাজবিজ্ঞান অনুষদ থেকে শুরু হয়ে পুরাতন রেজিস্ট্রার ভবনের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এরপর এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা উপাচার্যের বিভিন্ন স্বেচ্ছাচারিতার খতিয়ান তুলে ধরেন।

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending