কবিতায় রোদসী শিরোপা ২০২০ পাচ্ছেন কবি আলমগীর রেজা চৌধুরী

রিপন শান: জীবনবাস্তবতার সুখপাঠে অনবদ্য বহুমাত্রিক লেখক, সরোজ সত্তুরের উজ্জ্বল কবি , নতুন দ্যোতনার দৈনিক সময়ের আলো’র সহকারী সম্পাদক আলমগীর রেজা চৌধুরী, সমকালীন বাংলা কবিতায় নিরন্তর অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ  বাংলাদেশ রোদসী কৃষ্টিসংসার প্রবর্তিত রোদসী শিরোপা ২০২০ পাচ্ছেন । বাংলাদেশ রোদসী কৃষ্টিসংসার এর চেয়ারম্যান প্রভাষক কবি রিপন শান এবং মহাসচিব কবি ব্যারিস্টার সাদিয়া আরমান স্বাক্ষরিত সম্মাননা ঘোষণাপত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ।
আগামী ৩ মার্চ ২০২০ রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরে কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে রোদসীর ২০ বছরে পদার্পণ অনুষ্ঠানে জমকালো আয়োজনে কবি আলমগীর রেজা চৌধুরীর হাতে রোদসী শিরোপা তুলে দেয়া হবে । এসময় সমাজ সংস্কৃতির অন্যান্য শাখায় রোদসী শিরোপা ২০২০ আরো যারা পাবেন-মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব শিশুসাহিত্যিক ফারুক হোসেন ( শিশুসাহিত্যে ), দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক নাসিম আনোয়ার ( মানবকল্যাণে ), বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম ( সাংবাদিকতা ) ,স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী বুলবুল মহলানবীশ ( সংগীতে ), সিদ্ধেশ্বরী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ জুলহাস উদ্দিন ( শিক্ষায় ), মুক্তধারা সংস্কৃতি চর্চাকেন্দ্রের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী রফিকুল ইসলাম ( আবৃত্তিতে ), বাঙালি সাংস্কৃতিক বন্ধনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আজম বাশার ( দক্ষ সঙগঠক হিসেবে ), আজ রবিবার খ্যাত নাট্যপরিচালক মনির হোসেন জীবন ( নাট্য নির্দেশনা), প্রযোজক মীর ফখরুদ্দিন ছোটন ( অনুষ্ঠান নির্মাণে ), কবি কাজী জহিরুল ইসলাম ( ভ্রমণ সাহিত্যে ), গল্পকার মণি হায়দার ( কথাসাহিত্যে ),  বজ্রকণ্ঠ ডটকমের প্রধান নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আখতারুজ্জামান মিজান ( অনলাইন সাংবাদিকতা ), খন্দকার শাহ আলম ( মঞ্চাভিনয়ে ), কবি শেখ নজরুল ( গীতিকবিতায়) , পলল প্রকাশনের সিইও কবি গবেষক খান মাহবুব ( প্রকাশনা শিল্পে ) প্রমুখ ।
ভালোবাসার অমল চিঠির জনক কবি আলমগীর রেজা চৌধুরীর সৃষ্টির ব্যপ্তি বড়ই বিচিত্র । শুধু গদ্য পদ্য নয় খেলাধুলা বিষয়ক লেখালেখিতেও দারুণ দক্ষ তিন । ল্যূ সুনের কবিতার অনুবাদ তাঁকে সাহিত্য পরিমন্ডলে এনে দিয়েছে স্বতন্ত্র পরিচয় ।
১০ মার্চ ১৯৫৫ সালে টাঙ্গাইলের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণকারী কবি আলমগীর রেজা চৌধুরীর উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ তালিকায় রয়েছে- মমি জেগে ওঠে, মগ্ন মধ্যাহ্ন, মোহান্ধ পরিব্রাজক, প্রিয়াংকার জন্য হৃদয়নাথ, অদ্য শেষ রজনী, পরম্পরা, নিজকে বিনির্মাণ করতে হয়,শালিখচূড়ার বিন্দুবালা, সলিম আলী এবং আমাদের জেমস , অতন্দ্রিলা ঘুমাননি জানি, রাজনের ক্রিকেট স্বপ্ন, অপ্রকাশিত তসলিমা নাসরিন, ঊর্মিলা নগরে থাকে ইত্যাদি ।
বহুমাত্রিক জীবন ব্যঞ্জনার কবি আলমগীর রেজা চৌধুরীর অনবদ্য কবিতা- হঠাৎ সিরিজ, স্বীকারোক্তি,প্রয়াত মুখ, আমার মা,নামতালিকা, দৃশ্যকল্প, সুন্দর, নামাঙ্কিত অঙ্গুরী, পুনরাগমন, ত্রিকালদর্শীর বয়ান, দাদিমা গল্প ভূলতে থাকে, গালগল্প, মহাজন, স্বদেশের গল্প, নগরবাড়ি, হরতাল, পতন, সময় বহিয়া চলে, যুদ্ধ ৭১, হ্যালো হ্যালো, ধ্যানস্হ সারস, জনকের মুখ , বাংলাদেশ- শীর্ষক সৃষ্টিগুলো কবিতাপ্রেমিক বাঙালি পাঠকের হৃদয়ে থাকবে চিরঞ্জীব ।
Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending