জর্ডানের পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটকা ১০৩ বাংলাদেশি নারী

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ জর্ডানের পুনর্বাসন কেন্দ্রে আটকা পড়েছেন ১০৩ জন বাংলাদেশি নারী। রাজধানী আম্মানে আটক ১০৩ বাংলাদেশির জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র উপহার দিয়েছে সেখানের বাংলাদেশ দূতাবাস।

বাংলাদেশি বন্দিদের এই উপহার দেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান।দূতাবাসের শ্রম শাখার প্রথম সচিব মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান এ সময় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন।

শনিবার (৪ জুলাই) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

জর্ডানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান বন্দি বাংলাদেশিদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র হস্তান্তর করতে আম্মানের জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রের পরিচালক দালাল সাওয়ালহা রাষ্ট্রদূতকে পুনর্বাসন কেন্দ্রে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। রাষ্ট্রদূত জোয়াইদেহ পূর্নবাসন কেন্দ্র পরিদর্শনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পরিচালক দালাল সাওয়ালহাকে ধন্যবাদ জানান।

জোয়াইদেহ পুনর্বাসন কেন্দ্রে ১০৩ জন বাংলাদেশি নারী অবস্থান করছেন। এদের মধ্যে ৮৭ জন প্রশাসনিক কারণে, দুইজন বিচারিক কারণে এবং ১৪ জন বিভিন্ন ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে আটক রয়েছেন। আম্মানের পুনর্বাসন কেন্দ্রগুলোতে প্রশাসনিক কারণে আটকরা স্বদেশে ফিরে যেতে তাদের কাজগপত্র প্রক্রিয়া সম্পাদন করার জন্য সাধারণত ১৫-২০ দিনের জন্য স্বল্প মেয়াদে আটক হিসেবে অবস্থান করেন। তবে এই করোনা মহামারি চলাকালীন সময়ে বিমানবন্দর বন্ধ থাকায় তারা এই কেন্দ্রে ৪ মাস ধরে অপেক্ষা করছেন।

এই পরিস্থিতির কারণে আটক বাংলাদেশিদের সংখ্যা খুব বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। এ অবস্থায় তাদের প্রতিদিনের ব্যবহারের জন্য কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ঘাটতি দেখা দেয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তাদের জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে পোশাক, সাবান এবং টেলিফোন কার্ড সম্বলিত ১০৩টি বাক্স হস্তান্তর করেন।

 

 

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending