ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি নিয়ে ধুম্রজাল

বরিশাল অফিস: ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠন হচ্ছে বলে গুঞ্জন চলছে। তবে নতুন কমিটিতে কারা আসছে এ নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে।
কেউ বলছেন, অর্থের বিনিময়ে অযোগ্যদের স্থান দেওয়া হচ্ছে। কারো অভিযোগ, এলাকায় থাকেন না, এমন যুবকদের কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন করা হতে পারে। এতে পিছিয়ে পড়তে পারে শহরের নেতৃস্থানীয়রা, যারা পড়ালেখার পাশাপাশি সক্রিয়ভাবে দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত। দুর্বল কমিটি ঘোষণা করলে দুর্বার আন্দোলনে যেতে পারে বলে সংগঠনের অসংখ্য নেতাকর্মী জানিয়েছেন। প্রয়োজনে পাল্টা কমিটি গঠন করার হুশিয়ারি দেওয়া হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেতাদের বিচক্ষণতার পরিচয়ের অপেক্ষায় রয়েছেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা।
শোনা যাচ্ছে, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক (বরিশাল বিভাগ) মাহাবুবুল হক নান্নুর ইশারায় জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ অযোগ্য কয়েকজনের নাম সুপারিশ করতে যাচ্ছে।
জানা যায়, ২০১৩ সালের ১ নভেম্বর নলছিটি উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠন করা হয়। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ সুপার ফাইভ কমিটির পর দীর্ঘ ৭ বছরেও হয়নি পূর্ণাঙ্গ কমিটি। সভাপতি পলাশ সজ্জন ও সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল হাসান সবুজ এখনো হাল ধরে আছে সংগঠনটির। এরই মধ্যে কেন্দ্র থেকে নতুন কমিটি গঠনের নির্দেশ আসে। সে অনুযায়ী সম্ভাব্য প্রার্থীদের জীবন বৃত্তান্ত জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দের কাছে দেওয়া হয়। যাদের নাম তালিকার শীর্ষে রয়েছে, তাদের পাশ কাটিয়ে অযোগ্যদের নাম নিয়ে ভাবছেন বলে জেলা ছাত্রদলের দিকে অভিযোগের তীর। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ছাত্রদেলের সম্ভাব্য নেতা অভিযোগ করেন, অদৃশ্য ইশারায় জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সম্পাদক ঢাকায় থাকেন, অচেনা, আন্দোলন সংগ্রামে নেই-এমন কাউকে আহ্বায়ক করার চেষ্টা করছেন। এতে হতাশায় পড়েছেন ত্যাগী ও নিবেদিতরা। বর্তমান ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ ও উপজেলা বিএনপিও চাইছে যোগ্য ও স্থানীদের দিয়ে কমিটি গঠন করতে। তবে এতে বাঁধসাধতে পারেন ঢাকায় থাকেন, এমন ঝালকাঠির কয়েকজন নেতা। তারা নিজেদের পছন্দের লোক দিয়ে কমিটি করতে জেলা ছাত্রদলকে প্রভাবিত করছেন।
নতুন কমিটি করতে হলে অন্তত উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করে করা জরুরি বলেও মত দিয়েছেন কয়েকজন নেতা। তাঁরা বলছেন, চেইন না মনলে বিএনপি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে এ সহযোগী সংগঠনটি। আগামী দিনে আন্দোলন সংগ্রামে ভূমিকা রাখতে পারে, এমন নেতৃত্ব বেছে নেওয়ার দাবি জানিয়েন বিএনপি নেতারা। যদি টাকার বিনিময়ে অযোগ্যদের নাম ঘোষণা করা হয়, তাহলে ছাত্রদলের পাল্টা কমিটি গঠন করা হবে বলেও হুশিয়ারি দিয়েছেন কয়েকজন বিএনপি নেতা।
নলছিটি উপজেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান হেলাল বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে ছাত্রদলের কেন্দ্র থেকে আমাদের কাছে মতামত চাওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী আমরা একটি কমিটির সুপারিশ করেছি। কিন্তু শোনা যাচ্ছে, তা উপেক্ষা করে কমিটি দেওয়ার চেষ্টা চলছে। যারা এলাকায় থাকে না, যাদের কোন অবস্থান নেই সে ধরণের লোক দিয়ে কমিটি করা হলে সেটা মেনে নেওয়া যাবে না। প্রয়োজনে আমরা যে তালিকা পাঠিয়েছি, তা দিয়েই ছাত্রদলের কার্যক্রম চালাবো।
উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল হাসান সবুজ বলেন, প্রাণের এ সংগঠনটি গতিশীল থাকার জন্য শহরের ছেলেদের দিয়ে কমিটি গঠন করা প্রয়োজন। যারা ঢাকায় থাকেন, এলাকার কেউ চিনে না, এমন লোকদের কমিটিতে আনা হলে তা কেউ মানবে না। কমিটি হতে হবে তারেক রহমানের নির্দেশনা অনুযায়ী।
সভাপতি পলাশ সজ্জন বলেন, আমাদের কমিটি ৭ বছর ধরে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করছে। এখন নতুন নেতৃত্ব আসবে, এটাই চাই। কমিটি হতে হবে যোগ্যদের দিয়ে।
জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আরিফুর রহমান বলেন, আপাতত ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি হবে। আশাকরি যোগ্যরা স্থান পাবে। অনেকে না জেনেশুনে নানা কথা বলছে, এসবই গুজব।
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাংগঠনিক সম্পাদক (বরিশাল বিভাগ) মাহাবুবুল হক নান্নু বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। ছাত্রদলের নেতারা কমিটি করবে, এখানে আমার কোন হস্তক্ষেপ নেই।
কেএম/বি
Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending