পদ্মায় অল্পের জন্য প্রানে রক্ষা পেলেন ২৬৪ লঞ্চযাত্রী

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে লঞ্চডুবির কবল থেকে অল্পের জন্য প্রানে রক্ষা পেলেন ২৬৪ যাত্রী। ঘটনাস্থলের অদূরে মূল পদ্মায় কোস্টগার্ডের একটি জাহাজ এগিয়ে গিয়ে যাত্রীদের উদ্ধার করায় বড় ধরণের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছেন তারা।

শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে এম ভি মালেক দরবেশ-১ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ শিমুলিয়া ঘাট থেকে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে মাঝিকান্দি-কাঠাঁলবাড়ী ঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। পথে নির্মাণধীন পদ্মা সেতুর নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় নাব্যতা সঙ্কটের কারণে লঞ্চটির তলদেশ মাটিতে ঠেকে যায়। এসময় তলা ফেটে লঞ্চটি কাত হয়ে পানি ঢুকতে শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তাদের চিৎকারের শব্দ শুনে কোস্টগার্ডের কম্পজিট স্টেশনের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে যাত্রীদের উদ্ধার করেন।

কোস্টগার্ড জানায়, মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাট থেকে ২৬৪ যাত্রী নিয়ে এম ভি মালেক দরবেশ-১ নামের লঞ্চটি মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। সকাল পৌনে ৯টার দিকে লঞ্চটি পদ্মা সেতুর ২৫ নম্বর খুঁটির কাছে পৌঁছালে তলা ফেটে যায় এবং লঞ্চটি কাত হয়ে ডুবে যাওয়ার উপক্রম হয়। এ সময় যাত্রীদের চিৎকারের শব্দে কোস্টগার্ডের সদস্যরা দ্রত ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের উদ্ধার করে অপর লঞ্চ ও স্পিডবোটে তুলে দেন।

কোস্টগার্ডের মিডিয়া কর্মকর্তা হায়াত ইবনে সিদ্দিক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সকালে মাঝিরকান্দি ঘাটে যাওয়ার পথে জাজিরা পয়েন্টে পদ্মা সেতুর নিচে ডুবে যাচ্ছিল লঞ্চটি। কোস্টগার্ড সদস্য দ্রুত সেখানে হাজির হয়ে লঞ্চের সকল যাত্রীকেই নিরাপদে উদ্ধার করে। পরে অপর একাধিক নৌযানে যাত্রীদের নিজ নিজ গন্তব্যে যাওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়।

Print Friendly
User Rating: 5.0 (1 votes)
Sending