নেত্রকোণার পূর্বধলায় পাওয়া অজ্ঞাত নারীর হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন

গৌরাঙ্গ চন্দ্র শীল: নেত্রকোণার পূর্বধলায় পাওয়া অজ্ঞাত নারীর হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করেছে র‌্যাব-১৪।এ হত্যাকাণ্ডে মো. নিজাম (৩০) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

গত ১৯ নভেম্বর পূর্বধলা উপজেলার খলিসাউড় ইউনিয়নের বালুচরা বাজারের তালতলা এলাকায় এক অজ্ঞাত (২৬) নারীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।কিন্তু লাশের পরিচয় রহস্যাবৃতই থেকে যায়।সে রহস্য উন্মোচন করেছে র‌্যাব-১৪।

অজ্ঞাত পরিচয়ের এই নারীর নাম কমলা খাতুন (২৬)।কমলা নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলার কাকৈরপাড়া গ্রামের মাতাব উদ্দিনের মেয়ে।ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করতো।

গত সোমবার নেত্রকোণা জেলা প্রেস ক্লাবের হলরুমে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানায় র‌্যাব-১৪।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১৪ এর অধিনায়ক ডিআইজি মহিবুল ইসলাম বলেন, নিজাম ও কমলা একই সাথে ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করতো।সে সুবাদে নিজামের সাথে কমলার ৪ মাস আগে পরিচয়।পরবর্তীতে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।আসামি নিজাম বিয়ের জন্য চাপ দিলে কমলা রাজি না হওয়ায় হত্যার পরিকল্পনা করে।জিজ্ঞাসাবাদে নিজাম এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে স্বীকার করেছে।নিজামই ঘটনার মূলহোতা। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিজাম পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া গ্রামের চান মিয়ার ছেলে।

Print Friendly

Related Posts