অস্ট্রেলিয়ার হিসুতে ভেসেই গেল ভারত

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ পিচ্ছি বাবু নয় অস্ট্রেলিয়ার বড় বাবুদের হিসুতে ভেসেই গেল ভারত। ভারত সফরের আগ দিয়ে অস্ট্রেলিয়া দলকে ভারতীয় মিডিয়া কম ব্যঙ্গ করেনি! অজি দলটাকে পিচ্ছি বাবু বানিয়ে হিসু পর্যন্ত করিয়ে ছাড়ে কিছু টিভি চ্যানেল। সেটাই ভারতীয় দলের জন্য বুমেরাং হয়ে দাঁড়ালো!

ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর ওয়ানডে সিরিজেও অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৩-২ ব্যবধানে হারল বিরাট কোহলির দল।

দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় বুধবার ভারতকে ৩৫ রানে হারায় অস্ট্রেলিয়া। উসমান খাজার শতকে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৭২ রান করে সফরকারীরা। জবাবে ঠিক ৫০ ওভারে ২৩৭ রানে অল আউট হয় ভারত। ২০০৯ সালের পর ভারতের মাটিতে এই প্রথম ওয়ানডে সিরিজ জিতল অস্ট্রেলিয়া। ঘরের মাঠে ভারতের কাছে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ হারের পর এমন কিছুই করে দেখাতে হতো অস্ট্রেলিয়াকে। বিশেষ করে বিশ্বকাপের আগ দিয়ে।
৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। কিন্তু শেষ তিন ম্যাচ জিতে দারুণ এক কীর্তিও গড়ে অ্যারোন ফিঞ্চের দল। নিজেদের প্রথম ও ইতিহাসে মাত্র পঞ্চম দল হিসেবে ৫ ম্যাচের সিরিজে প্রথম দুই ম্যাচ হেরেও সিরিজ জিতল তারা। এই তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশের নামও, ২০০৫ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। একই বছর ৬ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুটি হারের পর টানা চার ম্যাচ জিতে ভারতকে হারিয়েছিল পাকিস্তান।

টসজয়ী অস্ট্রেলিয়া এদিন প্রথমে ব্যাট করে ফিঞ্চ-খাজার ব্যাটে দারুণ শুরু করে। ফিঞ্চের বিদায়ে ভাঙে ৭৬ রানের ওপেনিং জুটি। দ্বিতীয় উইকেটে জুটিতে আসে ম্যাচের সবচেয়ে বেশি ৯৯ রান। পিটার হ্যান্ডসকম্বকে রেখে ১০৬ বলে ঠিক ১০০ রান করে বিদায় নেন খাজা। সিরিজে ও ক্যারিয়ারে এটি তার দ্বিতীয় ওয়ানডে শতক। আগের ম্যাচে ৯ রানের জন্য হাতছাড়া করা এই ব্যাটসম্যানের ইনিংসে ছিল ১০টি চার ও ২টি ছক্কার মার।

সাত রানের ব্যবধানে হ্যান্ডসম্ব (৫২) ও ম্যাক্সওয়েলকে হারিয়ে বড় ইনিংসের সম্ভবনার রাশ টেনে ধরেন ভারতীয় বোলাররা। এরপর বাকিদের ছোট কিন্তু কার্যকরী অবদানে লড়াকু পুঁজি পায় অজিরা।

ভারতের হয়ে ৪৮ রানে ৩ উইকেট নেন ভুবনেশ্বর কুমার, ২টি করে নেন মোহাম্মদ শামি ও রবিন্দ্র জাদেজা।
জবাবে ১৩ ওভারের মধ্যে শেখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলিকে হারিয়ে চাপে পড়ে যাওয়া ভারত আর দাঁড়াতে পারেনি। ১৩২ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে। এরপর স্বাগতীক সমর্থকদের কিছুটা আশা দেখায় ভুবনেশ্বরও কেদার যাদবের ৯১ রানের জুটি। কিন্তু বলের সঙ্গে রানের ব্যবধান ঘোঁচাতে গিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে কোহলি বাহিনী।

টপ ও মিডিল অর্ডারে শুরু করেও ইনিংস টেনে লম্বা করতে পারেননি কেউই। একমাত্র ফিফটি রোহিত শর্মার (৫৬)। অজিদের হয়ে ৪৬ রানে ৩ উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা, ২টি করে নেন প্যাট কামিন্স, জেই রিচার্ডসন ও মার্কাস স্টয়নিস। সিরিজে দুটি সেঞ্চুরি ও এক ফিফটি করা খাজা হয়েছেন সিরিজ সেরা।
বিশ্বকাপের আগে এই হার বড় একটি প্রশ্নও দেখা দিয়েছে ভারতীয় দলে- চারে ব্যাট করবেন কে? রাইডু? রাহুল? বিজয়? নাকি এমএস ধোনি?

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
অস্ট্রেলিয়া: ২৭২/৯ (খাজা ১০০, ফিঞ্চ ২৭, হ্যান্ডসকম ৫২, ম্যাক্সওয়েল ১, স্টয়নিস ২০, টার্নার ২০, কেয়ারি ৩, রিচার্ডসন ২৯, কামিন্স ১৫, লায়ন ১*; ভুবনেশ্বর ৩/৪৮, শামি ২/৫৭, বুমরাহ ০/৩৯, কুলদীপ ১/৭৪, জাদেচা ২/৪৫, কেদার ০/৮)এ
ভারত: ৫০ ওভারে ২৩৭ (রোহিত ৫৬, ধাওয়ান ১২, কোহলি ২০, পান্ত ১৬, শঙ্কর ১৬, কেদার ৪৪, জাদেজা ০, ভুবনেশ্বর ৪৬, শামি ৩, কুলদীপ ৯, বুমরাহ ১; কামিন্স ২/৩৮, রিচার্ডসন ২/৪৮, স্টয়নিস ২/৩১, লায়ন ১/৩৪, জ্যাম্পা ৩/৪৬, ম্যাক্সওয়েল /৩৪)
ফল: অস্ট্রেলিয়া ৩৫ রানে জয়ী
সিরিজ: ৫ ম্যাচের সিরিজে ৩-২ ব্যবধানে জয়ী অস্ট্রেলিয়া
ম্যান অব দ্য ম্যাচ: উসমান খাজা
ম্যান অব দ্য সিরিজ: উসমান খাজা

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending