সাহিত্যে নোবেল পেলেন পোল্যান্ডের ওলগা টোকারচুক ও অস্ট্রিয়ার পিটার হ্যান্ডকে

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ ২০১৮ ও ২০১৯ সালের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। পোল্যান্ডের সাহিত্যিক ওলগা টোকারচুক পেয়েছেন ২০১৮ সালের নোবেল পুরস্কার। ২০১৯ সালের নোবেল সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন অস্ট্রিয়ার পিটার হ্যান্ডকে।

বৃহস্পতিবার দ্য সুইডিশ একাডেমির ম্যাটস মাল্ম চলতি ২০১৯ এবং ২০১৮ সালের জন্য দু’জনকে সাহিত্যে নোবেল বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করেন।

সুইডিশ একাডেমির ম্যাটস মাল্ম বলেন, ইতিমধ্যে সাহিত্য নোবেল বিজয়ী ওই দুইজনকেই জানানো হয়েছে।অস্ট্রিয়ার পিটার হ্যান্ডকে যখন জানানো হয় তখন তিনি বাসায় ছিলেন।ওলগা টোকারচুক বর্তমানে জার্মানিতে সফরে আছেন। তাকে ফোন করা হলে তিনি রাস্তার পাশে গাড়ি দাড় করিয়ে ফোন ধরেন।

‘ভাষাগত দক্ষতার মাধ্যমে মানুষের অভিজ্ঞতার পরিধি এবং বৈশিষ্ট্য অনুসন্ধানে গুরত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ২০১৯ সালে পিটার হ্যান্ডকে নোবেল পুরস্কার পেলেন।’

অন্যদিকে ‘বিশ্বকোষীয় আবেগের মাধ্যমে সীমানা অতিক্রমের জীবনবোধ নিয়ে লেখা একটি কাল্পনিক আখ্যান’ লেখার কারণে ওলগা টোকারচুককে ২০১৮ সালের জন্য সাহিত্য নোবেল দেয়া হল।

পোল্যান্ডের লেখক ওলগা টোকারচুক। তার ‘ফ্লাইটস’ উপন্যাসের জন্য তিনি ২০১৮ সালে প্রথম পোল্যান্ডের কোনো লেখক ম্যান বুকার পুরস্কার পান।ওলগা এর আগেও তিনি বহু পুরস্কার পেয়েছেন।

যৌন হয়রানির কেলেঙ্কারীর কারণে সুইডিশ একাডেমির ওপর জনগণের আস্থা কমে যাওয়ার আশঙ্কায় ২০১৮ সালের সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার স্থগিত রাখা হয়েছিল। এবার ২০১৮ এবং ২০১৯ সালের পুরস্কার একসঙ্গে ঘোষণা করা হলো।

এর আগে রিচার্জেবল ব্যাটারি উদ্ভাবন করে রসায়নবিদ্যায় যৌথভাবে ২০১৯ সালের নোবেল পেয়েছেন জার্মানি, যুক্তরাজ্য এবং জাপানের তিন বিজ্ঞানী।

লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি তৈরি এবং সেটি রিচার্জ করা সম্ভব, এমন যুগান্তকারী প্রযুক্তি উদ্ভাবনের স্বীকৃতি হিসেবে রসায়নবিদ জন বি গুডইনাফ, এম স্ট্যানলি হুইটিংহ্যাম এবং আকিরা ইয়োশিনো এই পুরস্কার পান।

এছাড়া মহাকাশ নিয়ে গবেষণায় বিশেষ কৃতিত্ব রাখায় চলতি বছর পদার্থবিদ্যায় নোবেল পুরস্কার জয় করে নিয়েছেন তিন মহাকাশবিজ্ঞানী।

পিবলস ‘পদার্থবৈজ্ঞানিক সৃষ্টিতত্ত্ব নিয়ে তত্ত্বীয় আবিষ্কারে’র জন্য এবং মিশেল মেয়র ও ডিডিয়ের কিয়েলজ ‘সূর্যের মতোই একটি নক্ষত্রকে আবর্তনকারী একটি গ্রহ আবিষ্কারে’র জন্য ২০১৯ সালে পদার্থবিদ্যায় নোবেল পান।

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending