‘নতুন বছর বাঙালি জাতির জীবনে বয়ে আনুক নতুন বারতা’

বিডিমেট্রোনিউজ ডেস্ক ॥ সবাইকে ১৪২৬ বঙ্গাব্দের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নতুন বছর বাঙালি জাতির জীবনে বয়ে আনুক নতুন বারতা।

রোববার নববর্ষের সকালে গণভবনে আওয়ামী লীগ, সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে এই কামনা করেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা।

টানা তৃতীয়বারের মত প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করায় দেশের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের যে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছে, সেই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে। বিশ্ব দরবারে বাঙালি জাতি সম্মানের সাথে মাথা উঁচু করে চলবে। বিশ্বে বাংলাদেশ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে উঠবে।”

নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে সকাল ৯টার আগেই আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতা-কর্মীরা গণভবনে আসতে শুরু করেন।

প্রধানমন্ত্রী সকাল সাড়ে দশটায় গণভবনের ব্যাঙ্কোয়েট হলে পৌঁছালে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘এসো এসো হে বৈশাখ’, ‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে’, ‘আলো আমার আলো’সহ বেশ কয়েকটি গান পরিবেশন করা হয় সমবেত কণ্ঠে। আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে গানের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকেও কণ্ঠ মেলাতে দেখা যায়।

এরপর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা দলের সভাপতি শেখ হাসিনাকে ফুল দিয়ে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানান।

পরে দলের বিভিন্ন ইউনিট এবং বিভিন্ন সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতারাও প্রধানমন্ত্রীকে ফুলের তোড়া উপহার দেন।

সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বলেন, “আমরা আমাদের সকল কর্মের মধ্য দিয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণ করব। বাংলাদেশ হবে ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ, যে বাংলাদেশের স্বপ্ন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব দেখেছিলেন।

“আর সেই বাংলাদেশ গড়বার জন্য আমি সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জনাচ্ছি।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “জাতির পিতার নেতৃত্বে আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছি। আজকে আমাদের লক্ষ্য জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়নের মধ্য দিযে সা্রা বিশ্বে বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তোলা।”

নতুন বছরের প্রথম দিন গণভবনে এই অনুষ্ঠানের অতিথিদের খই, মুড়কি, মিষ্টান্নসহ ঐতিহ্যবাহী বিভিন্ন খাবারে আপ্যায়িত করা হয়।

Print Friendly
User Rating: 0.0 (0 votes)
Sending