হারের পর বাংলাদেশকে পচা শামুক লিখলো আনন্দবাজার

বাংলাদেশের সঙ্গে হারের পর বাংলাদেশকে পচা শামুক লিখলো ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এশিয়া কাপে কেন হারল ভারত-এর ৫টি কারণ বর্ণনা করলো :

আনন্দবাজার লিখে- শুক্রবার এশিয়া কাপের সুপার ফোরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের ম্যাচ ছিল নেহাতই নিয়মরক্ষার। সেই ম্যাচ হালকা ভাবে নিতে গিয়ে হেরে গেলেন রোহিতেরা। ৬ রানে জিতল শাকিব আল হাসানের দল।

আনন্দবাজার আরও লিখে- পচা শামুকে পা কাটল রোহিত শর্মাদের। শুক্রবার এশিয়া কাপের সুপার ফোরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচ ছিল নেহাতই নিয়মরক্ষার। সেই ম্যাচ হালকা ভাবে নিতে গিয়ে হেরে গেলেন রোহিতেরা। ৬ রানে জিতল শাকিব আল হাসানের দল। কেন হারল ভারত? পাঁচ কারণ খুঁজে বের করল আনন্দবাজার অনলাইন।

১) দলে অতিরিক্ত পরিবর্তন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নিয়মরক্ষার ম্যাচ ছিল। কারণ ভারত আগেই ফাইনালে উঠে গিয়েছে। কিন্তু দলের ছন্দে আস্থা না রেখে বড্ড বেশি ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিতে চেয়েছিলেন রোহিত। সেই সিদ্ধান্ত কাজে লাগেনি। পাঁচ পরিবর্তনে দলের ছন্দটাই নষ্ট হয়ে যায়।

২) পরিবর্ত ক্রিকেটারেরা দাগ কাটতে পারলেন না। এশিয়া কাপে সুযোগ না পাওয়া তিলক বর্মা, সূর্যকুমার যাদবেরা এই ম্যাচে এসেছিলেন। কিন্তু কেউই সুযোগ কাজে লাগাতে পারলেন না। তিলক আউট হলেন জাজমেন্ট দিতে গিয়ে, যে ভুল আজকাল স্কুলছাত্রেরাও করেন না।

৩) মাঝের ওভারে উইকেট ফেলতে না পারা। বাংলাদেশের প্রথম চারটি উইকেট খুব তাড়াতাড়ি ফেলে দিয়েছিলেন ভারতের বোলারেরা। কিন্তু শাকিব এবং তৌহিদের জুটিকে ভাঙতে অনেক বেগ পেতে হল। স্পিনার হোক বা পেসার, ভারতের বোলিং ছিল নির্বিষ। দুই বাংলাদেশি ব্যাটারেরই খেলতে কোনও অসুবিধা হয়নি। ওই জুটি বাংলাদেশকে বড় ভিতের উপরে দাঁড় করিয়ে দেয়।

৪) খারাপ ফিল্ডিং এবং প্রচুর ক্যাচ ফেলা। নিয়মরক্ষার ম্যাচ বলেই কি বাংলাদেশকে হালকা ভাবে নিয়েছিল ভারত? প্রশ্ন উঠতেই পারে। গোটা ম্যাচে এত ক্যাচ ফেললেন ভারতীয় ফিল্ডারেরা যা দেখলে আঁতকে উঠতে হয়েছে সমর্থকদের। গা ছাড়া মনোভাব ছিল ফিল্ডিংয়েও। খুব সহজ বাউন্ডারি হয়েছে যা আর একটু চেষ্টা করলে ধরে ফেলা যেত।

৫) শুভমন ছাড়া বাকি ব্যাটারদের ব্যর্থতা। এখানেও খলনায়ক সেই দলবদল। খুবই খারাপ শট খেলে আউট হলেন রোহিত শর্মা। তিলক বর্মা, কেএল রাহুল, ঈশান কিশন কেউ ভাল খেলতে পারলেন না। বিরাট কোহলি, হার্দিক পাণ্ড্যেরা যে ম্যাচে নেই, সেখানে কাউকে ধরে খেলার দরকার ছিল। শুভমন গিলকে সঙ্গ দেওয়ার মতোই কেউ ছিলেন না।

Print Friendly

Related Posts